তথ্য কমিশনের নতুন সাইটে আপডেট দেখুন

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা

আর্কাইভ তথ্য অধিকার আইন ২০০৯ বাস্তবায়নে সমঝোতাস্মারক চুক্তিস্বাক্ষর করলো তথ্যকমিশন এবং ডিনেট
হোম আর্কাইভ তথ্য অধিকার আইন ২০০৯ বাস্তবায়নে সমঝোতাস্মারক চুক্তিস্বাক্ষর করলো তথ্যকমিশন এবং ডিনেট
তথ্য অধিকার আইন ২০০৯ বাস্তবায়নে সমঝোতাস্মারক চুক্তিস্বাক্ষর করলো তথ্যকমিশন এবং ডিনেট
ঢাকা, ৩১ আগস্ট-২০১৪: রবিবার তথ্যকমিশন এবং প্রকল্প বাস্তবায়নকারী প্রতিষ্ঠান ডিনেট এর মধ্যে তথ্য অধিকার আইন বাস্তাবায়নে পারস্পরিক সহযোগিতা ও পৃষ্ঠপোষকতাবিষয়ক একচুক্তি সই হয়। ছবিতে চুক্তিস্বাক্ষরকারীছাড়াও প্রধান তথ্য কমিশনার মোহাম্মদ ফারুক, পরিচালক (প্রশিক্ষণ) মোঃ সাইফুল্লাহিল আজম এবং পিআরও মোঃ শাহ আলমকে দেখা যাচ্ছে।
এ চুক্তির ফলে মোবাসিল ব্যবহারকারীদের সুবিধার্থে ডিনেট তথ্য কমিশনকে সহায়তার লক্ষ্যে তথ্য অধিকার আইন ব্যবহারের সার্বিক প্রক্রিয়াবিষয়ক একটি মোবাইল এপি­কেশন ও কনেটনট তৈরি করবে। 

তথ্য অধিকার আইন-২০০৯ অনুসারে প্রতিটি আবেদন, আপিল ও তথ্য কমিশনে অভিযোগের অনলাইনভিত্তিক একটি সফটওয়ার নির্মাণ করবে। এছাড়াও তথ্য কমিশনের ডাটাব্যবস্থাপনার উন্নয়নেও ডিনেট সহযোগিতা প্রদান করবে। তথ্য অধিকার আইন বাস্তবায়নে উভয় প্রতিষ্ঠান প্রয়োজনে পারস্পারিক সম্মতির ভিত্তিতে উভয়ের লোগো ব্যবহার 
করতেও পারবে।

তথ্যকমিশন এর পক্ষে তথ্য কমিশন সচিব মোঃ ফরহাদ হোসেন এবং ডিনেটের পক্ষ থেকে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রিজওয়ানা রশিদ অনি চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। আগারগাঁও প্রশাসনিক এলাকায় অবস্থিত তথ্যকমিশনে এই চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হয়। প্রধান তথ্যকমিশনার মোহাম্মদ ফারুক চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক তথ্য অধিকার আইন, ২০০৯ প্রতিষ্ঠা বাংলাদেশের জন্য অন্যতম একটি মাইলফলক । এই মাইফলক অর্জনে তথ্যকমিশন বাংলাদেশে প্রধান ভূমিকা রেখে চলেছে। তথ্য অধিকার আইন ২০০৯ এর যথাযথ প্রয়োগকে আরো ত্বরান্বিত করার জন্য তথ্যকমিশন এর সাথে বেসরকারী বিভিন্ন সংস্থাও কাজ করছে। ডিনেটের সাথে তথ্যকমিশন এর মধ্যে এ চুক্তি সবাক্ষরের ফলে সারাদেশে যেখানেই ডিনেট তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে তথ্য অধিকার আইন বাস্তবায়নে কাজ করবে সেখানেই তথ্যকমিশন সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

Photo: তথ্য অধিকার আইন ২০০৯ বাস্তবায়নে সমঝোতাস্মারক চুক্তিস্বাক্ষর করলো তথ্যকমিশন এবং ডিনেট  ঢাকা, ৩১ আগস্ট-২০১৪: রবিবার  তথ্যকমিশন এবং প্রকল্প বাস্তবায়নকারী প্রতিষ্ঠান ডিনেট এর মধ্যে তথ্য অধিকার আইন বাস্তাবায়নে পারস্পরিক সহযোগিতা ও পৃষ্ঠপোষকতাবিষয়ক একচুক্তি সই হয়।    এ চুক্তির ফলে মোবাসিল ব্যবহারকারীদের সুবিধার্থে ডিনেট তথ্য কমিশনকে সহায়তার লক্ষ্যে তথ্য অধিকার আইন ব্যবহারের সার্বিক প্রক্রিয়াবিষয়ক একটি মোবাইল এপি­কেশন ও কনেটনট তৈরি করবে।    তথ্য অধিকার আইন-২০০৯ অনুসারে প্রতিটি আবেদন, আপিল ও তথ্য কমিশনে অভিযোগের অনলাইনভিত্তিক একটি সফটওয়ার নির্মাণ করবে। এছাড়াও তথ্য কমিশনের ডাটাব্যবস্থাপনার উন্নয়নেও ডিনেট সহযোগিতা প্রদান করবে। তথ্য অধিকার আইন বাস্তবায়নে উভয় প্রতিষ্ঠান প্রয়োজনে পারস্পারিক সম্মতির ভিত্তিতে উভয়ের লোগো ব্যবহার  করতেও পারবে।  তথ্যকমিশন এর পক্ষে তথ্য কমিশন সচিব মোঃ ফরহাদ হোসেন এবং ডিনেটের পক্ষ থেকে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রিজওয়ানা রশিদ অনি চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। আগারগাঁও প্রশাসনিক এলাকায় অবস্থিত তথ্যকমিশনে এই চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হয়। প্রধান তথ্যকমিশনার মোহাম্মদ ফারুক  চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।   গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক তথ্য অধিকার আইন, ২০০৯ প্রতিষ্ঠা বাংলাদেশের জন্য অন্যতম একটি মাইলফলক । এই মাইফলক অর্জনে তথ্যকমিশন বাংলাদেশে প্রধান ভূমিকা রেখে চলেছে। তথ্য অধিকার আইন ২০০৯ এর যথাযথ প্রয়োগকে আরো ত্বরান্বিত করার জন্য তথ্যকমিশন এর সাথে বেসরকারী বিভিন্ন সংস্থাও কাজ করছে। ডিনেটের সাথে তথ্যকমিশন এর মধ্যে এ চুক্তি সবাক্ষরের ফলে সারাদেশে যেখানেই ডিনেট তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে তথ্য অধিকার আইন বাস্তবায়নে কাজ করবে সেখানেই তথ্যকমিশন সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।
 

এই মুহূর্তে ভিজিটর

আমাদের সাথে আছে 67 অতিথি অনলাইন